প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে চাকরি ২০২২ | Ministry of Primary and Mass Education Job 2022

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে চাকরির সুযোগ

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে চাকরি ২০২২ : আপনি কি একটি সরকারি চাকরির খোঁজ করছেন?আশা করি হ্যা,কারন আজকাল সরকারি চাকরি প্রার্থীদের সংখ্যা খুবই বেশি। যদি আপনি সরকারি চাকরি অথবা ভালো মান সম্পন্ন চাকরি করতে আগ্রহী হন তাহলে এই সার্কুলারটি দেখতে পারেন।সম্পূর্ণ নতুন একটি চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে।বরাবরের মতো এবারো আমরা সম্পূর্ণ সার্কুলারটি আপনাদের সামনে তুলা ধরলাম।যেনো আপনারা অতি সহজেই বেকারত্ব সমস্যা দূর করে নিজে উপার্জনের পথে অগ্রসর হতে পারেন।

সরকারি চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে চাকরি ২০২২  : প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে শূন্য পদে অস্থায়ী ভিত্তিতে জনবল নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। এ প্রতিষ্ঠানে একাধিক পদে কর্মী নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহী প্রার্থীদের অনলাইনে আবেদন করতে হবে।আপনি যদি একটি সুন্দর এবং চ্যালেঞ্জিং পরিবেশে চাকরি করতে আগ্রহী হন তাহলে এটি হতে আপনার জন্য উপযুক্ত চাকরি।যদি আপনার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে সরকারি চাকরির মাধ্যমে ক্যারিয়ার গড়ার লক্ষ্যে থাকে তাহলে উক্ত চাকরিটি আপনার জন্য উপযোগী নাকি অনুপযোগী তা নির্ধারণ করে আজই আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে পারেন।যদি আপনি নিজেকে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে বিবেচনা করে থাকেন তাহলে আপনিও আবেদন করতে পারেন।আবেদনের সকল নিয়মাবলি থেকে শুরু করে যোগ্যতা,বয়সসীমা ইত্যাদি সমস্ত বিষয় সম্পর্কে নিচে বিস্তারিত তুলে ধরা হলো।আশা করি মনোযোগ সহকারে পড়বেন এবং নিজের জন্য আলোকিত ভবিষ্যৎ গড়তে সহযোগিতা করবেন।

►► আরো বিজ্ঞপ্তি দেখতে পারেন : সমবায় অধিদপ্তরে চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২
►► আরো বিজ্ঞপ্তি দেখতে পারেন : বাংলাদেশ কেমিক্যাল করপোরেশনে (বিসিআইসি) চাকরি ২০২২

Ministry of Primary and Mass Education Job

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের একটি স্বতন্ত্র মন্ত্রণালয়।[১] এ মন্ত্রণালয়টি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা বাস্তবায়নের জন্য সরকারের সর্বোচ্চ প্রতিষ্ঠান। এর মূল উদ্দেশ্য সবার জন্য শিক্ষা।১৯১০ সনে গোপাল কৃষ্ণ গোখলে প্রাথমিক শিক্ষা বাধ্যতামূলক করার জন্য আইন পরিষদে একটি বিল উৎথাপন করেন। তার এ বিলটি পাস না হলেও এর পরিবর্তে পৌর এলাকায় প্রাথমিক শিক্ষা বাধ্যতামূলক করার একটি বিল পাশ হয়। ১৯৩০ সালে প্রাথমিক শিক্ষা আইন প্রণয়ন করা হয়েছিল। পাকিস্তান আমলে ১৯৫৭ সালে সরকার জেলা স্কুল বোর্ড ভেঙ্গে দিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস গঠন করে। দেশ স্বাধীন হওয়ার পরও প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হয়। কিন্তু এর পরিধি বেড়ে যাওয়ায় ১৯৯২ সালে প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগ ও গণশিক্ষা বিভাগকে নিয়ে স্বতন্ত্র প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় গঠন করা হয়।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

১. পদের নাম: সিনিয়র ডেটা এন্ট্রি/কন্ট্রোল অপারেটর
পদসংখ্যা: ১
যোগ্যতা: স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক (সম্মান) বা সমমানের ডিগ্রিসহ ডেটা এন্ট্রি/কন্ট্রোল অপারেটর পদে অন্তত দুই বছরের চাকরির অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরে প্রতি মিনিটে বাংলা ২৫ শব্দ ও ইংরেজিতে ৩০ শব্দের গতিসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে স্ট্যান্ডার্ড অ্যাপটিটিউড টেস্টে উত্তীর্ণ হতে হবে।
বেতন স্কেল: ১২,৫০০-৩০,২৩০ টাকা (গ্রেড-১১)

২. পদের নাম: কম্পিউটার অপারেটর
পদসংখ্যা: ১
যোগ্যতা: স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগে স্নাতক (সম্মান) বা সমমানের ডিগ্রি থাকতে হবে। কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরে প্রতি মিনিটে বাংলা ২৫ শব্দ ও ইংরেজিতে ৩০ শব্দের গতিসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে স্ট্যান্ডার্ড অ্যাপটিটিউড টেস্টে উত্তীর্ণ হতে হবে।
বেতন স্কেল: ১১,০০০-২৬,৫৯০ টাকা (গ্রেড-১৩)

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে চাকরির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

৩. পদের নাম: সাঁট মুদ্রাক্ষরিক কাম কম্পিউটার অপারেটর
পদসংখ্যা: ৩
যোগ্যতা: স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি থাকতে হবে। কম্পিউটার প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হতে হবে। ওয়ার্ড প্রসেসিংসহ ই-মেইল ও ফ্যাক্স পরিচালনায় অভিজ্ঞ হতে হবে। কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরে প্রতি মিনিটে বাংলা ২৫ শব্দ ও ইংরেজিতে ৩০ শব্দের গতি এবং সাঁটলিপিতে বাংলায় প্রতি মিনিটে সর্বনিম্ন ৪৫ শব্দ ও ইংরেজিতে ৭০ শব্দের গতি থাকতে হবে।
বেতন স্কেল: ১১,০০০-২৬,৫৯০ টাকা (গ্রেড-১৩)

৪. পদের নাম: ডেটা এন্ট্রি অপারেটর
পদসংখ্যা: ২
যোগ্যতা: স্বীকৃত বোর্ড থেকে এইচএসসি বা সমমান পাস। কম্পিউটার প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হতে হবে। ওয়ার্ড প্রসেসিংসহ ই-মেইল ও ফ্যাক্স পরিচালনায় অভিজ্ঞ হতে হবে। কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরে প্রতি মিনিটে বাংলা ২০ শব্দ ও ইংরেজিতে ২০ শব্দের গতি থাকতে হবে।
বেতন স্কেল: ৯,৩০০-২২,৪৯০ টাকা (গ্রেড-১৬)
যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: জামালপুর, সিরাজগঞ্জ, বরিশাল ও পিরোজপুর জেলার প্রার্থীদের আবেদন করার প্রয়োজন নেই। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

৫. পদের নাম: অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক
পদসংখ্যা: ২
যোগ্যতা: স্বীকৃত বোর্ড থেকে এইচএসসি বা সমমান পাস। কম্পিউটার প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হতে হবে। ওয়ার্ড প্রসেসিংসহ ই-মেইল ও ফ্যাক্স পরিচালনায় অভিজ্ঞ হতে হবে। কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরে প্রতি মিনিটে বাংলা ২০ শব্দ ও ইংরেজিতে ২০ শব্দের গতি থাকতে হবে।
বেতন স্কেল: ৯,৩০০-২২,৪৯০ টাকা (গ্রেড-১৬)
যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: জামালপুর, সিরাজগঞ্জ, বরিশাল ও পিরোজপুর জেলার প্রার্থীর আবেদন করার প্রয়োজন নেই। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

৬. পদের নাম: অফিস সহায়ক
পদসংখ্যা: ৩
যোগ্যতা: স্বীকৃত বোর্ড থেকে এসএসসি বা সমমান পাস।
বেতন স্কেল: ৮,২৫০-২০,০১০ টাকা (গ্রেড-২০)
যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গাজীপুর, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, রাজবাড়ী, কিশোরগঞ্জ, শেরপুর, চট্টগ্রাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কুমিল্লা, খাগড়াছড়ি, পাবনা, সিরাজগঞ্জ, বগুড়া, রংপুর, দিনাজপুর, গাইবান্ধা, কুড়িগ্রাম, যশোর, নড়াইল, সাতক্ষীরা, ঝালকাঠী ও হবিগঞ্জ জেলার প্রার্থীর আবেদন করার প্রয়োজন নেই। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

বয়সসীমা
৩ এপ্রিল ২০২২ তারিখে প্রার্থীর বয়স ১৮-৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে (প্রোগ্রামার পদ ছাড়া)। বীর মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও শারীরিক প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ বয়স ৩২। সাঁট মুদ্রাক্ষরিক কাম কম্পিউটার অপারেটর ও অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক পদের জন্য বিভাগীয় প্রার্থীদের ক্ষেত্রে বয়সসীমা ৪০ বছর পর্যন্ত শিথিলযোগ্য।

আবেদন করার প্রক্রিয়া

আবেদন যেভাবে করবেন
আগ্রহী প্রার্থীদের এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। আবেদন পদ্ধতি, ফি জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া ও নিয়োগসংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য এই লিংক থেকে জানা যাবে। অনলাইনে আবেদন করতে কোনো সমস্যা হলে টেলিটক নম্বর থেকে ১২১ নম্বরে অথবা যেকোনো নম্বর থেকে ০১৫০০ ১২১১২১ নম্বরে কল করা যাবে। এ ছাড়া [email protected] বা [email protected] ঠিকানায় ই-মেইল করা যাবে। এ ক্ষেত্রে মেইলের সাবজেক্টে সংস্থার নাম, পদের নাম, অ্যাপ্লিকেন্ট ইউজার আইডি ও যোগাযোগের নম্বর দিতে হবে।

আবেদন ফি
পরীক্ষার ফি বাবদ ১ থেকে ৫ নম্বর পদের জন্য ১০০ টাকা, টেলিটক চার্জ ১২ টাকাসহ মোট ১১২ টাকা এবং ৬ নম্বর পদের জন্য ৫০ টাকা, টেলিটক চার্জ ৬ টাকাসহ মোট ৫৬ টাকা টেলিটক প্রিপেইড মুঠোফোন নম্বর থেকে এসএমএসের মাধ্যমে জমা দিতে হবে। অনলাইনে আবেদন ফরম পূরণ করার অনধিক ৭২ ঘণ্টার মধ্যে পরীক্ষার ফি জমা দিতে হবে।

আবেদনের সময়সীমা: ৩ এপ্রিল ২০২২ থেকে ২৫ এপ্রিল ২০২২, বিকেল ৫টা পর্যন্ত।

 

Leave a Reply