বাংলাদেশর গুরুত্বপূর্ণ সাধারণ জ্ঞান ! বিসিএস প্রিলি প্রস্তুতি | সাধারণ জ্ঞান

Discuss Today Job Circular 2022

এক নজরে বাংলাদেশ গুরুত্বপূর্ণ সাধারণ জ্ঞান | বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ  কিছু কমন প্রশ্ন

আমরা অনেক সময় বাংলাদেশর গুরুত্বপূর্ণ সাধারণ জ্ঞান সম্পর্কে জানি না তাই আপনাদেরকে আজকের এই পোস্টের বাংলাদেশের সকল কমন সাধারণ জ্ঞান সম্পর্কে জানাবো।আশা করি আপনি যদি আজকের এগুলো সব সময় মনে রাখতে পারেন তাহলে আপনার অনেক উপকারে আসতে পারে।

সাপ্তাহিক ছুটি: শুক্রবার ও শনিবার। কিছু কিছু অফিস শনিবার খোলা থাকে।
আন্তর্জাতিক ডায়ালিং কোড : +৮৮০
আন্তর্জাতিক সময় অঞ্চল: বিএসটি (জিএমটি +৬ ঘণ্টা)

বাংলাদেশর জনগন সম্পর্কে বাংলাদেশর গুরুত্বপূর্ণ সাধারণ জ্ঞান

জনসংখ্যা: ১৬.৬৫ কোটি
পুরুষ: ৮.৫৫ কোটি
মহিলা: ৮.১০ কোটি
শিক্ষার হার: ৭৪.৪%
ভাষা: বাংলা
বাংলা (জাতীয় ভাষা): ৯৫% জনগণ
অন্যান্য ভাষা: ৫%
ইংরেজির ব্যবহার প্রচলিত আছে।

বাংলাদেশর ধর্ম সাধারণ জ্ঞান

মুসলিম: ৮৬.৬%,
হিন্দু: ১২.১%
বৌদ্ধ: ০.৬%
খ্রিস্টান: ০.৪% এবং
অন্যান্য: ০.৩%.

বাংলাদেশর বয়স-ভিত্তিক বণ্টন সাধারণ জ্ঞান

০-১৪ বছর: ৩০.৮%
১৫-৪৯ বছর: ৫৩.৭%
৫০-৫৯ বছর: ৮.২%
৬০ বছরের ঊর্ধ্বে: ৮.১%

এক নজরে বাংলাদেশর জন্ম মৃত্যু সাধারণ জ্ঞান

জনসংখ্যার বৃদ্ধির হার: ১.৩৭%
জন্মহার: প্রতি হাজারে ১৮.১ জন
মৃত্যুহার: প্রতি হাজারে ৪.৯ জন

বাংলাদেশর লিঙ্গ বণ্টন সাধারণ জ্ঞান

লিঙ্গ অনুপাত (প্রতি ১০০ জন নারীর বিপরীতে পুরুষ): ১০০.২
উর্বরতা হার: নারীপ্রতি ২.৩ শিশু (সূত্র)

বাংলাদেশর জাতিগোষ্ঠী সাধারণ জ্ঞান

বাঙালি: ৯৮%
ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠী: ২%
প্রধান নৃ গোষ্ঠীসমূহ: চাকমা, মারমা, সাঁওতাল, গারো, মনিপুরী, ত্রিপুরা, তনচংগা

বাংলাদেশর ভূগোল সাধারণ জ্ঞান

ভৌগোলিক অবস্থান: ২৬° ৩৮’ উত্তর অক্ষাংশ থেকে ২০° ৩৪’ উত্তর অক্ষাংশ এবং
৮৮° ০১’ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ থেকে ৯২° ৪১’ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ
আয়তন: ১৪৭,৫৭০ বর্গকিমি
ভূমি: ১৩৩,৯১০ বর্গকিমি,
জলজ: ১০,০৯০ বর্গকিমি

বাংলাদেশর সীমানা সম্পর্কে বাংলাদেশর গুরুত্বপূর্ণ সাধারণ জ্ঞান

উত্তরে ভারত (পশ্চিমবঙ্গ আর মেঘালয়)
পশ্চিমে ভারত (পশ্চিম বঙ্গ )
পূর্বে ভারত (ত্রিপুরা ও আসাম) এবং  মিয়ানমার
দক্ষিণে বঙ্গোপসাগর
সীমানা দৈর্ঘ্য: ৪,২৪৬ কিমি. (মায়ানমার : ১৯৩ কিমি., ভারত : ৪,০৫৩ কিমি.)
সমুদ্র সীমানা: ৫৮০ কিমি.
মহীসোপান: মহাদ্বীপীয় মার্জিন বাইরের সীমা অবধি
বিশেষ অর্থনৈতিক এলাকা: ২০০ নটিক্যাল মাইল
সমুদ্র এলাকা: ১২ নটিক্যাল মাইল
ভুমির ধরন: প্রধানত সমভুমি, পূর্ব ও দক্ষিনপূর্বে পাহাড়ি ভুমি
রাজধানী: ঢাকা

বাংলাদেশর এলাকাভিত্তিক পরিসংখ্যান সাধারণ জ্ঞান

বিভাগ: ৮টি – ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, সিলেট, রাজশাহী, বরিশাল, রংপুর,ময়মনসিংহ
জেলা: ৬৪ টি
উপজেলা: ৪৯১ টি
প্রধান নদীসমূহ: পদ্মা, মেঘনা, যমুনা, সুরমা, ব্রম্মপুত্র, কর্ণফুলী, তিস্তা, শীতলক্ষ্যা, রূপসা, মধুমতি, গড়াই, মহানন্দা

বাংলাদেশর জলবায়ু সাধারণ জ্ঞান

জলবায়ুর ধরন: উপ ক্রান্তীয় মৌসুমি বায়ু
গড় তাপমাত্রা: শীতকালে ১১° সি – ২০° সি (অক্টোবর – ফেব্রুয়ারি)
গ্রীষ্মকালে: ২১° সি – ৩৮° সি (মার্চ – সেপ্টেম্বর)
বৃষ্টিপাত: ১১০০ মিমি. – ৩৪০০ মিমি. (জুন – আগস্ট)

বাংলাদেশর আর্দ্রতা সাধারণ জ্ঞান

সর্বোচ্চ: ৯৯% (জুলাই),
সর্বনিম্ন: ৩৬% (ডিসেম্বর – জানুয়ারি)

বাংলাদেশর অর্থনীতি সম্পর্কে বাংলাদেশর গুরুত্বপূর্ণ সাধারণ জ্ঞান

অর্জন: বাংলাদেশ D-8 এর সদস্য।
গোল্ডম্যান স্যাস কর্তৃক “Next Eleven Economy of the world” হিসেবে বিবেচিত।
মাথাপিছু আয়: $২০৬৪ (সুত্র: বাংলাদেশ অর্থনৈতিক সমীক্ষা – ২০২০)
জিডিপি প্রবৃদ্ধি (%): ৫.২৪ (সুত্র: বাংলাদেশ অর্থনৈতিক সমীক্ষা – ২০২০)
দারিদ্র্যের হার: ২০.৫% (সুত্র: বাংলাদেশ অর্থনৈতিক সমীক্ষা – ২০২০)
মানব উন্নয়ন সূচকে অবস্থান: ১৩৯ তম
আন্তর্জাতিক অনুদান নির্ভরতা: ২%
প্রধান ফসল: ধান, পাট, চা, গম, আঁখ, ডাল, সরিষা, আলু, সবজি, ইত্যাদি।
প্রধান শিল্প: পোশাকশিল্প (পৃথিবীর ২য় বৃহত্তম শিল্প), পাট (বিশ্বের সর্ববৃহৎ উৎপাদনকারী), চা, সিরামিক, সিমেন্ট, চামড়া, রাসায়নিক দ্রব্য, সার, চিংড়ি প্রক্রিয়াজাত, চিনি, কাগজ, ইলেক্ট্রিক ও ইলেক্ট্রনিক্স সামগ্রী, ঔষধ, মৎস্য।
প্রধান রপ্তানি: পোশাক (পৃথিবীর ২য় বৃহত্তম শিল্প), হিমায়িত চিংড়ি, চা, চামড়া ও চামড়াজাত দ্রব্যাদি, পাট ও পাটজাত দ্রব্য (পাট উৎপাদনে বাংলাদেশ প্রথম), সিরামিক্স, আইটি আউটসোর্সিং, ইত্যাদি।
প্রধান আমদানি: গম, সার, পেট্রোলিয়াম দ্রব্যাদি, তুলা, খাবার তেল, ইত্যাদি।
প্রধান খনিজ সম্পদ: প্রাকৃতিক গ্যাস, তেল, কয়লা, চিনামাটি, কাচ বালি, ইত্যাদি।
মুদ্রা: টাকা (বিডিটি – প্রতীক  ৳) ১০০০, ৫০০, ১০০, ৫০, ২০, ১০, ৫, ২, ও ১ টাকার নোট আর ৫০, ২৫, ১০, ৫, ২৫, ১০, ৫ ও ১ পয়সা
শ্রমিক বণ্টন: ৫.৪১ কোটি
পুরুষ: ৩.৭৯ কোটি,
নারী: ১.৬২ কোটি (সূত্র : বিইএস)

বাংলাদেশর শিল্প-ভিত্তিক শ্রমিক বণ্টন

কৃষি: ৪৮.৪%,
শিল্প: ২৪.৩%,
অন্যান্য: ২৭.৩%
পরিবহন ব্যবস্থা: সড়ক, আকাশপথ, রেল, নদীপথ (বিস্তারিত)
ইপিজেড: ঢাকা, উত্তরা, আদমজী, চট্রগ্রাম, কুমিল্লা, ঈশ্বরদী, কর্ণফুলী, এবং মংলা।

বাংলাদেশর ঐতিহাসিক দিনসমূহ সাধারণ জ্ঞান

স্বাধীনতা দিবস: ২৬ মার্চ
বিজয় দিবস: ১৬ ডিসেম্বর
শহীদ দিবস: ২১ ফেব্রুয়ারি (আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবেও পরিচিত)

বাংলাদেশর পর্যটন

পর্যটন আকর্ষণ: ঢাকা, চট্রগ্রাম, কক্সবাজার, কাপ্তাই, রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি, বান্দরবান, কুয়াকাটা, বগুড়া, খুলনা, সুন্দারবন, সিলেট, রাজশাহী, দিনাজপুর, এবং কুমিল্লা
বিমানবন্দর: ঢাকা (আন্তর্জাতিক), চট্রগ্রাম (আন্তর্জাতিক), সিলেট (আন্তর্জাতিক), যশোর, রাজশাহী, সৈয়দপুর, বরিশাল, কক্সবাজার

আরও তথ্য: বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন

বাংলাদেশর তথ্য প্রযুক্তি (আইটি) সাধারণ জ্ঞান

জাতীয় ডোমেইন: .bd
ইন্টারনেট অনুপ্রবেশ: ৬.৬৭ কোটি (২০১৭) সূত্রঃ বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন
মোবাইল ব্যাবহারকারী: ১২ কোটি ৮৩ লক্ষ (২০১৭) সূত্রঃ বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন
মোবাইল অনুপ্রবেশ: জনসংখ্যার ৮০%

বাংলাদেশের বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ক্রম সম্পর্কে বাংলাদেশর গুরুত্বপূর্ণ সাধারণ জ্ঞান

  • জনসংখ্যার দিক দিয়ে পৃথিবীর ৮ম বৃহত্তম দেশ

  • ৪র্থ বৃহৎ মুসলিম দেশ, মুসলিম সংখাগরিষ্ঠ দেশ হিসাবে বিশ্বের ৩য় দেশ

  • জনসংখ্যার ঘনত্বের দিক দিয়ে বিশ্বের ৭ম বৃহৎ দেশ, ১০ কোটির উপর জনসংখ্যার দেশ হিসাবে বাংলাদেশ পৃথিবীর সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ দেশ (সূত্র)
  • গাঙ্গেয় বদ্বীপে অবস্থিত, যা পৃথিবীর সর্ববৃহৎ বদ্বীপ

  • কক্সবাজার পৃথিবীর দীর্ঘতম প্রাকৃতিক সমুদ্র সৈকত

  • জিডিপির দিক থেকে, বাংলাদেশের অর্থনীতি পৃথিবীর ৩৫তম দেশ কিন্তু জিডিপি বৃদ্ধির দিক থেকে পৃথিবীর ২৮তম অর্থনীতি (সূত্র)
  • বাংলাদেশের পোশাকশিল্প পৃথিবীর ২য় বৃহত্তম পোশাকশিল্প (সূত্র)
  • পৃথিবীর সর্ববৃহৎ পাট উৎপাদনকারী দেশ (পাট উদ্ভিজ্জ আঁশের মধ্যে উৎপাদনের দিক দিয়ে ২য়, তুলার পরেই অবস্থান)

  • সুন্দরবন (বাংলাদেশ ও ভারত) পৃথিবীর সর্ব বৃহৎ ম্যানগ্রোভ বন

  • বাংলাদেশের পোশাকশিল্পে নূন্যতম মজুরি পৃথিবীর সর্বনিম্ন (বেসরকারি সুত্র)

সাধারণত যেভাবে প্রশ্ন হতে পারে

০১. বাংলাদেশ একটি –
ক. গণ প্রজাতন্ত্রী            খ. প্রজাতন্ত্র
গ. ইসলামী প্রজাতন্ত্র       ঘ. গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র
০২. বাংলাদেশের সাংবিধানিক নাম-
ক. People’s Republic in Bangladesh   খ. Bangladesh People’s Republic
গ. The Republic of Bangladesh          ঘ. People’s Republic of Bangladesh
উত্তরমালা-
১।     ক         ২।     ঘ

বাংলাদেশের ভৌগোলিক পরিচিতি

সাধারণ আলোচনা: ভৌগলিক অবস্থান:২৬° ৩৮’ উত্তর অক্ষাংশ থেকে ২০° ৩৪’ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৮৮° ০১’ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ থেকে ৯২° ৪১’ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ।
সীমানা: উত্তরে: ভারতের পশ্চিমবঙ্গ , আসাম ও মেঘালয়
পূর্বে: ভারতের আসাম, ত্রিপুরা, মিজোরাম ও মায়ানমার
পশ্চিমে: ভারতের পশ্চিমবঙ্গ
দক্ষিণে: বঙ্গোপসাগর

ভারত ও মায়ানমারের সাথে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী জেলাসমূহ

পশ্চিমবঙ্গের সাথে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী জেলাসমূহ:
১. রাজশাহী, ২. নবাবগঞ্জ, ৩. নওঁগা, ৪, জয়পুরহাট, ৫. পঞ্চগড়, ৬. লালমনিরহাট, ৭. দিনাজপুর, ৮. ঠাকুরগাঁও, ৯. নীলফামারী, ১০. যশোর, ১১. কুষ্টিয়া, ১২. মেহেরপুর, ১৩. ঝিনাইদহ, ১৪. চুয়াডাঙ্গা, ১৫. সাতক্ষীরা।
আসামের সাথে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী জেলাসমূহ:
১. কুড়িগ্রাম, ২. সিলেট, ৩. সুনামগঞ্জ, ৪. মৌলভীবাজার
ত্রিপুরার সাথে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী জেলাসমূহ:
১. ফেনী, ২. কুমিল্লা, ৩. হবিগঞ্জ, ৪. ব্রাহ্মনবাড়িয়া,
৫. খাগড়াছড়ি, ৬. চট্টগ্রাম, ৭. রাঙ্গামাটি
মেঘালয়ের সাথে বাংলাদেশেল সীমান্তবর্তী জেলাসমূহ:
১. নেত্রকোনা, ২. শেরপুর, ৩. জামালপুর, ৪. ময়মনসিংহ।
মিজোরামের সাথে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী জেলাসসমূহ:
১. রাঙামাটি
মায়ানমারের সাথে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী জেলাসমূহ:
১. রাঙামাটি, ২. বান্দরবান, ৩. কক্সবাজার।

►► আরো দেখো: বঙ্গবন্ধু কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

বাংলাদেশের ভূ-প্রকৃতি

  • বাংলাদেশের অবস্থান ক্রান্তীয় অঞ্চলে।
  • ভূ-প্রকৃতি অনুসারে বাংলাদেশকে ৩ ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে-
  • ১. পাহাড়ী এলাকা
  • ২. সোপান অঞ্চল
  • ৩. প্লাবন ভূমি বা পাললিক সমভূমি অঞ্চল।
  •  বাংলাদেশের পাহাড়গুলো গঠিত হয়- টারশিয়ারী যুগে।
  • বাংলাদেশের বৃহত্তম এবং উঁচু পাহাড়- গারো পাহাড় (ময়মনসিংহ)।
  • ঢাকার প্রতিপাদ স্থান অবস্থিত- চিলির নিকট প্রশান্ত মহাসাগরে।
  • ‘বরেন্দ্রভূমি’ বলা হয়- রাজশাহী বিভাগের উত্তর পশ্চিমাংশকে।
  • বরেন্দ্রভূমির আয়তন – ৯,৩২৪ বর্গ কিলোমিটার।
  • বাংলাদেশের ভূ-খন্ড সৃষ্টির পূর্বে এখানে ছিল- বঙ্গখাদ বা ইধহমড়-ইধংরহ.
  • বাংলাদেশে আগে সাগর ছিল তার প্রমাণ- চুনাপাথরের খনি।
  • বাংলাদেশের মধ্য দিয়ে অতিক্রম করেছে- কর্কটক্রান্তি রেখা বা ৯০০ পূর্ব দ্রাঘিমা রেখা বা ট্রপিক অব ক্যানসার।
  • কাপ্তাই থেকে প্লাবিত পার্বত্য চট্টগ্রামের উপত্যকা এলাকাকে বলা হয়-ভেঙ্গী ভ্যালি।
  • মধুপুর ও ভাওয়ালের গড় অবস্থিত- গাজীপুর, ময়মনসিংহ ও টাঙ্গাইল।
  • মধুপুর ও ভাওয়ালের গড়-এর আয়তন- ৪,১০৫ বর্গ কিলোমিটার।
  • বাংলাদেশের বৃহত্তম ব-দ্বীপ- সুন্দরবন।

 ভৌগলিক অবস্থানগত বিবরণ

অবস্থান থানা জেলা  অন্যান্য
সর্ব উত্তরের তেতুঁলিয়া পঞ্চগড়

গ্রাম- জায়গেরজোত

স্থল বন্দর- বাংলাবান্ধা

সর্ব দক্ষিণের টেকনাফ কক্সবাজার

লোকালয়- কলাপাড়া

ভূখন্ড- ছেঁড়াদ্বীপ

ইউনিয়ন- সেন্টমার্টিন

সর্ব পূর্বের থানচি বান্দরবান স্থান- আখানঠং
সর্ব পশ্চিমের শিবগঞ্জ চাঁপাইনবাবগঞ্জ স্থান- মনাকশা

 

আয়তনে বাংলাদেশের

বড় বিভাগ –              চট্টগ্রাম
ছোট বিভাগ-              সিলেট
বড় জেলা  –              রাঙ্গামাটি
ছোট জেলা –              মেহেরপুর (৭১৬ ব. কি. মি.)
বড় থানা    –              শ্যামনগর (সাতক্ষীরা)
ছোট থানা  –              কোতয়ালী (ঢাকা)

জনসংখ্যায় বাংলাদেশের

বড় বিভাগ –              ঢাকা
ছোট বিভাগ             -সিলেট
বড় জেলা  –              ঢাকা
ছোট জেলা –             বান্দরবান
বড় উপজেলা  –         বেগমগঞ্জ (নোয়াখালী)
ছোট উপজেলা         -রাজস্থলী (রাঙ্গামাটি)

 

চাকরির খবর জানতে ভিজিট করতে পারেন।

Leave a Reply